‘ম্যারাথন’ প্রতিযোগিতা মানুষের মধ্যে সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যরে অনুভূতি সৃষ্টি করে: সন্তু লারমা


আপডেটের সময়ঃ ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২১


পার্বত্য চট্টগ্রামের আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা (সন্তু লারমা) বলেছেন, ম্যারাথন প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে এখানকার জনমানুষের মধ্যে সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যে প্রতিষ্ঠায় অনুভূতি সৃষ্টি করে । এটি আমাদের হৃদয় দিয়ে অনুভব করা উচিত। ম্যারাথন যুদ্ধকে স্মরণে রাখার জন্য ম্যারাথন দৌঁড় প্রতিযোগিতা,এটি সারা বিশ্বে হয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাঙ্গামাটি সেনা রিজিয়নের মাঠে বঙ্গবন্ধু জন্মশত বার্ষিকী এবং স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে সেনা রিজিয়নের আয়োজনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন দৌঁড় প্রতিযোগিতার প্রথম পর্বের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি ম্যারাথন দৌঁড় প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী যুবদের উদ্দেশ্যে বলেন, ম্যারাথন দৌঁড় প্রতিযোগিতা এমন একটি প্রতিযোগিতা, যে প্রতিযোগিতায় সুস্থ একটি জীবন, একটি শরীর তার প্রয়োজন আছে। এই প্রতিযোগিতায় দীর্ঘ একটি পথ পাড়ি দিতে হয় তার জন্য প্রয়োজন শক্তি। এমনিতে আমরা যদি জীবনকে সুন্দর করতে চাই, তাহলে শুধু মানুষই নয় আমাদের দৈহিক সার্বিক সুস্থতাও প্রয়োজন আছে।

রাঙ্গামাটি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইফতেকুর রহমান, পিএসসি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ম্যারাথন প্রতিযোগিতা এটি দৌঁড়ের বিষয়ে মূখ্য নয়,এটি একটি প্রতীকি বিষয়। অথ্যাৎ, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মুক্তিযুদ্ধের জন্য যেভাবে আহ্বান করেছেন,ঠিক সেভাবেই আমরা সবাই মহান যুদ্ধে যাপিয়ে পড়েছিলাম। এই যে বিশ্বাস এই যে স্বপ্ন। এই স্বপ্নটাই যেন আমার মনে করি। জাতি ধর্ম নির্বিশেষে অর্থ্যাৎ পাহাড়ি-বাঙালি সকলে মিলে মিশে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বাংলাদেশকে আয় উন্নয়নের দিকে নিয়ে যাবো।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে রাঙ্গামাটিতে মোতায়েন করেছেন অপারেশন উত্তরণের জন্য। আমাদের অপারেশন উত্তরণের মূল হল,শান্তি,সম্প্রীতি ও উন্নয়ন। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী দেশের সার্বভৌমত্ব ও স্বাধীনতার প্রতীক। ১৯৭১ সালে যেমন আমরা জনগণের পাশে এসে দাঁড়িয়েছি, যুদ্ধ করেছি ঠিক তেমনি ভাবে দেশের প্রয়োজনে আপনাদেরকে সাথে নিয়ে কাজ করে যাবো। আপনারা আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম এবং আপনারাই জাতির  ভবিষ্যৎ।

এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন,রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসন একেএম মামুনুর রশিদ, বিজিবি রাঙ্গামাটির সেক্টর কমান্ডার আহসান আজিজ, ডিজিএফআই এর  উপ-পরিচালক ইমরান ইবনে আব্দুর রউফ সহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাগণ।

নিজস্ব প্রতিবেদক-রাঙামাটি, ফোকাস চট্টগ্রাম ডটকম

পরিবার ও দেশকে সুস্থ রাখতে ঘরে থাকুন, করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরিধানসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সৌজন্যেঃ দেশচিত্র ডটনেট।