নৌকায় ভোট দিয়ে জঙ্গী-খুনী-রাজাকার লালনকারীদের রুখে দিন: রেজাউল করিম


আপডেটের সময়ঃ জানুয়ারি ১০, ২০২১


চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী জনসংযোগকালে বিভিন্ন পথসভায় বলেন, জনগণের প্রতি ভালবাসা থেকে আওয়ামী লীগের জন্ম। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান বাংলার মানুষকে ভালবেসে, জনগণের অধিকারের কথা বলতে গিয়ে যৌবনের অধিকাংশ সময় পাকিস্তানীদের কারাগারে কাটিয়েছেন। বাংলাকে ভালবেসে, বাংলার মানুষকে ভালবেসে হাঁসি মুখে ফাঁসির মঞ্চে গিয়েছিলেন। বাংলাদেশের মানুষকে স্বাধীনতা মুক্তিপাগল জাতিতে পরিনত করে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন।

রোববার (১০ জানুয়ারী) বিকেলে ৩য় দিনের দলীয় প্রচারণায় নগরীর উত্তর কাট্টলী, উত্তর পাহাড়তলী ও সরাইপাড়া ওয়ার্ডে গণ সংযোগ শুরু করেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধে মরণ পণ লড়াইয়ে বাঙালি স্বাধীনতার সূর্যকে ছিনিয়ে এনেছিল।  পাকিস্তানের কারাগার থেকে ৭২ এর আজকের দিনে বঙ্গবন্ধু দেশে প্রত্যাবর্তন করে যুদ্ধ বিধ্বস্ত পোড়া মাটি থেকে সোনা ফলানোর কাজে জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন। বাংলাদেশের মানুষের কল্যান বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগের একমাত্র লক্ষ্য। চটকদার অনেক কথাই অনেকে বলে থাকে, একমাত্র আওয়ামী লীগই মানুষের কল্যানে কাজ করতে পেরেছে। মানুষের সাথে ধোকাবাজি করে, দেশের সম্পদ লুট বিদেশে পাচার করে জনগণ দ্বারা প্রত্যাখ্যাত একটি দল জনগণের আস্থা হারিয়ে নির্বাচন এলেই অজুহাতের ফুলঝুড়ি সাজায়। লুটপাটের অর্থে বিদেশে বসে দেশীয় দোসরদের দিয়ে আন্দোলনের কথা বলেন, আন্দোলনের নামে মানুষ পুড়িয়ে মারা, দেশের সম্পদ বিনষ্ট করা এ দেশের মানুষ আর সহ্য করবেনা। আগামী চসিক নির্বাচনে স্বতঃস্ফূর্ত ও উৎসব মূখর পরিবেশে  নৌকায় ভোট দিয়ে চট্টগ্রাম থেকে বোমাবাজ, দুর্ণীতিবাজ, খুনী ও আগুন সন্ত্রাসীদের সমুচিৎ জবাব দিতে তিনি ভোটারদের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে বীর  চট্টলার মানুষ সর্বাগ্রে রুখে দাঁড়িয়েছে। বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে যারা উঠে পড়ে লেগেছে, সেই জঙ্গি, রাজাকার ও বঙ্গবন্ধুর খুনীর মদদদাতাদের রুখে দিতে আওয়ামী লীগের প্রতীক, স্বাধীনতা-গণতন্ত্র ও উন্নয়নের প্রতীক  নৌকায় ভোট দিয়ে চট্টগ্রামের মানুষ চট্টগ্রামের মেয়র নির্বাচিত করবে। তিনি আরো বলেন, মেয়র নির্বাচিত হয়ে আমি একটি সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত, দুর্ণীতি মুক্ত, মাদক মুক্ত, সন্ত্রাস মুক্ত, পরিবেশ বান্ধব, পর্যটক বান্ধব, বাণিজ্য অনুকুল, স্বাস্থ্যকর, নান্দনিক ও স্মার্ট চট্টগ্রাম সিটি গড়ার  অঙ্গীকারে আপনাদের সকলের দোয়া ও নৌকা প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করছি।

এসময় মহানগর আওয়ামী লীগের চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, প্রচার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক, কাউন্সিলর পদপ্রার্থী নিছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী লোটন, নুরুল আবছার মিয়া, হাজী সুলতান আহমদ, কাজী আলতাফ, গিয়াস উদ্দিন জুয়েল, ইকবাল চৌধুরী, হাবিবুর রহমান চৌধুরী, সারোয়ার মোর্শেদ, এরশাদ মামুন, কাউন্সিলর পদপ্রার্থী নুরুল আমিন কালু, লায়ন শওকত আলী, লূৎফুর হক খুশী উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া তিনি দুপুরে নৌকা প্রতীকে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন জাতীয় পার্টি চট্টগ্রাম মহানগর, অংঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন সমূহের যৌথ উদ্যাগে আয়োজিত মত বিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন।

বিকালে ১৫নং বাগমনিরাম ওয়ার্ড আয়োজিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে অসহায় মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করনে এসময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, সাধারণ সম্পদাক আ জ ম নাছির উদ্দিন, মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিন, জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি শফর আলী, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ও কাউন্সিলর পদপ্রার্থী গিয়াস উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আবুল বশর প্রমুখ।

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফোকাস চট্টগ্রাম ডটকম

পরিবার ও দেশকে সুস্থ রাখতে ঘরে থাকুন, করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরিধানসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সৌজন্যেঃ দেশচিত্র ডটনেট।