দুই মাসের মধ্যে গ্যাস সংযোগ না দিলে দুর্বার আন্দোলন: রেজাউল করিম


আপডেটের সময়ঃ নভেম্বর ২৩, ২০২০


চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত চসিক মেয়র পদপ্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, পাঁচ বছর ধরে আবাসিক সংযোগসহ বর্ধিত চুলায় গ্যাস সংযোগ পাচ্ছেন না ২৫ হাজার গ্রাহক। এর পরিপ্রেক্ষিতে অনুমোদিত ও জামানতের কোটি কোটি টাকা পরিশোধ করেও হাজার হাজার গ্রাহক অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। গ্রাহকদের অভিযোগ বর্তমান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের উচ্চপদস্থ কিছু কর্মকর্তা ষড়যন্ত্রমূলকভাবে অপেক্ষমাণ গ্রাহকদের আবাসিক সংযোগ বন্ধ রেখেছে। এই কান্ডে কেজিডিসিএলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হাজার হাজার গ্রাহক।

সোমবার (২৩ নভেম্বর) বেলা ১১ টায় কেজিডিসিএল ঠিকাদার গ্রাহক ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে করোনা সচেতনতায় গণসংযোগ ও মাস্ক বিতরণ অনুষ্ঠান তিনি একথা বলেন।

কেজিডিসিএল ঠিকাদার গ্রাহক ঐক্য পরিষদের সিনিয়র সহসভাপতি আলী নাওয়াজ’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক একেএম অলিউল্লা হকের পরিচালনায় ষোলশহর কেজিডিসিএল অফিস চত্ত্বরে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন মানিক হাওলাদার, প্রশান্ত বড়ুয়া, আবদুল মালেক শেখ, ফরমান উল্লাহ অপু, তানজিদ হাসান রবিন, শওকত হাসান হাওলাদার, সিবিএ সভাপতি মাকসুদুর রহমান হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আসলাম, শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাবের খতীব, সাধারণ সম্পাদক মো. মহিউদ্দিন ও চট্টগ্রাম গ্যাস পাইপ লাইন নির্মাণ শ্রমিন ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ।

এম. রেজাউল করিম চৌধুরী আরো বলেন, টাকা জমা নিয়ে সব প্রক্রিয়া শেষ করেও গ্যাস সংযোগ দিচ্ছে না কেজিডিসিএল। আজ দেবে-কাল দেবে বলে কালক্ষেপণ করছেন তারা। নতুন সংযোগ না দিলেও পুরাতন গ্রাহকদের সংযোগ দেওয়া উচিত। সংযোগ না দিলে রাস্তা কাটিংসহ বিভিন্ন পর্যায়ে খরচ হওয়া গ্রাহকদের টাকা কে দেবে? সভাপতির বক্তব্যে আলী নাওয়াজ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আবাসিক গ্যাস সংযোগ দেয়ার সম্মতি দেয়ার পরও কেন গ্যাস সংযোগ দেয়া হচ্ছে না। যদি আগামী দুই মাসের মধ্যে গ্যাস সংযোগ দেয়া না হয় দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। আমরা সরকারের সিদ্ধান্তকে সম্মান করে নতুন সংযোগের কথা বলতে চাই না। তবে কোটি কোটি টাকা গ্রাহকের পকেট থেকে নিয়ে কোন অধিকারে এই কেজিডিসিএলের এমডি বসে আছেন? তার জবাব দিতে হবে। তিনি কথা দিয়েছিলেন, এ ব্যাপারে তার উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। কিন্তু আজ পর্যন্ত সংযোগ প্রদানের ব্যাপারে তিনি টু-শব্দও করছেন না।

কেজিডিসিএল ঠিকাদার গ্রাহক ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক একেএম অলিউল্লা হক বলেন, ‘আমরা পরিস্কারভাবে বলতে চাই কেজিডিসিএলের অনুমোদনক্রমে অর্থ জমা করেছি। গত পাঁচ বছর ধরে সংযোগ না পেয়ে আমাদের যে ক্ষতি হয়েছে তার জন্য আমরা এই ষড়যন্ত্রকারী কর্মকর্তাদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি। অবিলম্বে গ্যাস সংযোগ প্রদান না করলে এর সকল দায়-দায়িত্ব কেজিডিসিএলকেই বহন করতে হবে।’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফোকাস চট্টগ্রাম ডটকম

পরিবার ও দেশকে সুস্থ রাখতে ঘরে থাকুন, করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরিধানসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সৌজন্যেঃ দেশচিত্র ডটনেট।