চেক প্রতারণা মামলায় প্রজেক্ট বিল্ডার্স এমডি-পরিচালকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা


আপডেটের সময়ঃ নভেম্বর ২২, ২০২০


চট্টগ্রামে নির্মাণ প্রতিষ্ঠান প্রজেক্ট বিল্ডার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম ও পরিচালক প্রকৌশলী আমিন ফারজানার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

রোববার (২২ নভেম্বর) চেক প্রতারণা মামলায় তৃতীয় যুগ্ম মহানগর দায়রা জজ আদালত চট্টগ্রাম এই পরোয়ানা জারি করেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, কেএসআরএমের দায়ের করা মামলায় প্রজেক্ট বিল্ডার্স লিমিটেডের এমডি প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম ও পরিচালক প্রকৌশলী আমিন ফারজানার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন তৃতীয় যুগ্ম মহানগর দায়রা জজ আদালত চট্টগ্রাম।

বাদিপক্ষের আইনজীবী এড.সিরাজুল মোস্তফা মাহমুদ বলেন, ২০১৬ সালে প্রজেক্ট বিল্ডার্স লিমিটেডের দেওয়া ২ কোটি ও ৯৫ লাখ টাকার দুইটি চেক ডিজঅনার হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে কেএসআরএম কর্তৃপক্ষ তাদের কাছে বারবার ধরনা দিয়েও টাকা আদায়ে ব্যর্থ হয়। প্রজেক্ট বিল্ডার্স লিমিটেডের এমডি ও পরিচালক নানাভাবে হয়রানি ও সময়ক্ষেপণ করতে থাকে। ফলে নিরুপায় হয়ে আদালতের শরণাপন্ন হয় কেএসআরএম। তিনি জানান, প্রজেক্ট বিল্ডার্স লিমিটেড ওই মামলার প্রসিডিং এর বিরুদ্ধে হাইকোর্ট ডিভিশনে ক্রিমিনাল মিসেলিনিয়াস মামলা দায়ের করলে হাইকোর্ট তা খারিজ করে দেন। এরপর সুপ্রিম কোর্টে আপিল বিভাগে আপিল এবং পরবর্তীতে রিভিউ পিটিশন করে প্রজেক্ট বিল্ডার্স লিমিটেড। আপিল বিভাগ হাইকোর্টের আদেশ বহাল রেখে প্রজেক্ট বিল্ডার্স লিমিটেডের আপিল এবং রিভিউ পিটিশন খারিজ করে দেন। তিনি জানান, ১৯ নভেম্বর তৃতীয় যুগ্ম মহানগর দায়রা জজ আদালতে মামলার সাক্ষীর জন্য দিন ধার্য ছিলো। ওইদিন আসামিরা আদালতে হাজির না হয়ে সময়ের আবেদন করলে আদালত তা খারিজ করে দেন। পাশাপাশি বাদির সাক্ষ্য গ্রহণ করেন এবং আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফোকাস চট্টগ্রাম ডটকম

পরিবার ও দেশকে সুস্থ রাখতে ঘরে থাকুন, করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরিধানসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সৌজন্যেঃ দেশচিত্র ডটনেট।