চাকুরী দেয়ার নামে ২১ যুবকের কাছ থেকে ১৯ লক্ষাধিক টাকা আত্মসাত


আপডেটের সময়ঃ ডিসেম্বর ১, ২০২০


চট্টগ্রামে নাবিক পদে চাকরি দেয়ার নাম করে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ২১ যুবকর কাছ থেকে ১৯ লাখ ৩ হাজার ১৩০ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন এক ব্যক্তি। এজন্য তিনি ব্যবহার করতেন কম্পাস শিপিং সার্ভিস নামে একটি প্রতিষ্ঠানের লোগো ও প্যাড।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় এমন প্রতারণার অভিযোগে নগরের নিউ মার্কেটে কম্পাস শিপিং সার্ভিস নামে ওই প্রতিষ্ঠান থেকে প্রতারক শাহাদাত হোসেনকে আটক করে পুলিশ। এর আগে ভুক্তভোগীদের অভিযোগ পেয়ে কৌশলে তাকে অফিসে ডেকে আনেন প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজার মো. মিজানুর রহমান।

প্রতারক শাহাদাত হোসেন কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম এলাকার অহিদুর রহমানের ছেলে। নগরের হালিশহরের কর্ণফুলী আবাসিক এলাকার একটি ভাড়া বাসায় থাকেন তিনি। পেশায় তিনিও একজন নাবিক।

কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন বলেন, মূলত কম্পাস শিপিং সার্ভিস লিমিটেড নামের প্রতিষ্ঠানটির লগো-প্যাড ব্যবহার করে জাহাজে নাবিক পদে চাকরি দেয়ার কথা বলে মো. শাহাদাত হোসেন প্রতারণা করে আসছিলেন। সোমবার প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা শাহাদাতকে তাদের প্রতিষ্ঠানে কৌশলে ডেকে এনে আমাদের জানালে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে আটক করি। এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজার মিজানুর রহমান বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। সেটিতে তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, ২০১৯ সালেও ৮ থেকে ১০ জন তরুণ যুবককের কাছ থেকে জাহাজে চাকরি দেয়ার নাম করে বিপুল পরিমাণ টাকা আত্মসাত করে হালিশহর থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলেন। সেসময় বেশ কয়েকবার জেলও খাটতে হয় প্রতারক শাহাদাতকে।

ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন, প্রতারণার শিকার অধিকাংশ যুবক চট্টগ্রামের ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট নামে একটি প্রতিষ্ঠানের ছাত্র। প্রতারক শাহাদাতও এ প্রতিষ্ঠানে পড়াশুনা করেন। গত ২০ দিনের মধ্যে এরা সবাই শাহাদাতের কাছে প্রতারিত হয়েছেন। ভুক্তভোগীরা জানান, চাকরি দেয়ার নাম করে নগদ, বিকাশ ও ব্যাংকের মাধ্যমে তাদের কাছ থেকে টাকা আদায় করেন। চাকরি না পেয়ে বারবার শাহাদাত হোসেনের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেন তারা। কিন্তু তাকে পাওয়া যাচ্ছিল না। একপর্যায়ে তারা শাহাদাতের দেওয়া এপয়েনমেন্ট অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানটিতে যোগাযোগ করেন। সেখানে গিয়ে জানতে পারেন শাহাদাত একজন প্রতারক। পরে প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা কৌশলে তাকে সেখানে ডেকে এনে পুলিশে দেয়।

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফোকাস চট্টগ্রাম ডটকম

পরিবার ও দেশকে সুস্থ রাখতে ঘরে থাকুন, করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরিধানসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সৌজন্যেঃ দেশচিত্র ডটনেট।