চট্টগ্রামে হেফাজতের ১৯ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাংসদের মামলা

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে চট্টগ্রামের একটি আদালতে মামলা দায়ের

আপডেটের সময়ঃ জুন ২৩, ২০২১

ব্রাহ্মণবাড়িয়া তিন আসনের সংসদ সদস্য উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিবসহ ১৯ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে চট্টগ্রামের একটি আদালতে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার আসামিরা হলেন, মোবারক উল্লাহ, সাজিদুর রহমান, আশরাফুল হাসান তপু, বোরহান উদ্দিন কাশেমী, মাওলানা আলী আজম, মাওলানা এরশাদুল্লাহ, মাওলানা জুনায়েদ কাশেমী, মাওলানা নোমান আল হাবিবী, মমিনুল হাসান তাজ, সোলেমান মোল্লা, এনামুল হক, খালেদ মোশাররফ, মো. জোবায়ের আহমদ, শাহরিয়ার আহমদ, হোসাইন আহমদ, মিজানুর রহমান সোহাগ ও মোহাম্মদ কাওছার।

মঙ্গলবার দুপুরে চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনালের এস কে এম তোফায়েল হাসানের আদালতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি দায়ের করেন তিনি।

এদিকে আইনজীবী এড.এইচ এম জিয়া উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, আদালত মামলাটি আমলে নিয়েছেন। আদালতের কাছে আবেদন জানিয়েছি মামলাটি যাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানায় এফআইআর হিসেবে গ্রহণ করে এবং পিবিআিইকে তদন্তের নির্দেশ দেয়।

মামলার এজাহারে বলা হয়, আসামীরা স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দেশে আগমনের বিরোধীতা করে গত ২৬ মার্চ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত ব্রাক্ষণবাড়িয়া শহরে তাণ্ডব চালায়। এসময় তারা সরকারি বেসরকারি ৫৭ টি প্রতিষ্ঠানে হামলার পাশাপাশি বঙ্গবন্ধুর দুটি ম্যুরাল ভাঙ্গচুর করে। পরে ৩১ মার্চ আসামীরা সংবাদ সম্মেলর করে এসব তাণ্ডবের জন্য বাদীকে দায়ী করেন। পরে মামলার বাদি ব্রাহ্মণবাড়িয়া তিন আসনের সংসদ সদস্য উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, সরকারি স্থাপনা ভাংচুর করে তারা। এরপর আবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমার মাধ্যমে মিথ্যাচারও করে। মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে প্রাণের তাগিদ থেকে আমি এ মামলাটি দায়ের করেছি।

নিজস্ব প্রতিবেদক।

পরিবার ও দেশকে সুস্থ রাখতে ঘরে থাকুন, করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরিধানসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সৌজন্যেঃ দেশচিত্র ডটনেট।