চট্টগ্রামে পোশাকর্মীকে খুন: স্বামী-সতীন গ্রেফতার


আপডেটের সময়ঃ জানুয়ারি ৩০, ২০২১


চট্টগ্রাম নগরীতে খুন হওয়া এক নারী পোশাককর্মীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় স্বামী ও সতীনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এই দুইজন মিলে তাকে খুন করে আত্মহত্যা করেছে বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৯ জানুয়ারী) রাতে নগরীর খুলশী থানার বাটালি হিল এলাকায় ইসলাম কলোনির একটি বাসা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। মৃত ফারজানা আক্তার বুলু (২৭) ওই কলোনির বাসিন্দা অটোরিকশা চালক শরীফ মিয়ার স্ত্রী। ঘটনার পর পুলিশ শরীফ মিয়া (৩০) ও তার দ্বিতীয় স্ত্রী রিনা আক্তারকে (২৩) গ্রেফতার করেছে।

খুলশী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আফতাব হোসেন জানিয়েছেন, শরীফ পেশায় অটোরিকশাচালক। ফারজানা ও রিনা দু’জনেই পোশাক কারখানার কর্মী। ফারজানাকে খুনের ঘটনায় তার ভাই আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে মামলা করেছেন। এতে বলা হয়েছে, চার বছর আগে ভালোবেসে শরীফকে বিয়ে করেন ফারজানা। কিন্তু বছরখানেক আগে শরীফ আবার রিনাকে বিয়ে করে নগরীর ওয়্যারলেস কলোনি এলাকায় আলাদা বাসা নিয়ে বসবাস শুরু করেন। এতে ফারজানার সঙ্গে শরীফের মনোমালিন্য শুরু হয়। সম্প্রতি শরীফ রিনাকে নিয়ে বাটালি হিলের বাসায় উঠলে তাদের মধ্যে প্রতিদিন ঝগড়া-বিবাদ লেগে থাকত।

এদিকে পারিবারিক দ্বন্দ্বের জের ধরে ফারজানাকে খুন করা হয়েছে বলে জানিয়ে নগর পুলিশের বায়েজিদ বোস্তামি জোনের সহকারী কমিশনার পরিত্রাণ তালুকদার বলেন, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, শরীফের তিন স্ত্রী আছে। এর মধ্যে দুই স্ত্রী ফারজানা ও রিনাকে নিয়ে শরীফ এক বাসায় থাকত। পারিবারিক ঝগড়ার একপর্যায়ে শরীফ ও রিনা মিলে শ্বাসরোধ করে ফারজানাকে খুন করে। এরপর লাশের গলায় ওড়ান পেঁচিয়ে সেটি রান্নাঘরের চালের সাথে ঝুলিয়ে রাখে।

তিনি বলেন, রাত ১০টার দিকে এ ঘটনার পর নিজেদের পরিকল্পনা মতো রিনা ঘুমানোর ভান করে। শরীফ বাইরে চা খেতে যায়। ঘণ্টাখানেক পর বাসায় রিনা চিৎকার শুরু করে। শরীফ বাসায় যায়। দু’জন মিলে মানুষকে জানানোর চেষ্টা করে- ফারজানা আত্মহত্যা করেছে। কিন্তু প্রতিবেশীরা সেটি বিশ্বাস না করে তাদের আটকে রেখে পুলিশকে খবর দেয়। আমরা গিয়ে লাশ উদ্ধার করি এবং দু’জনকে গ্রেফতার করি।

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফোকাস চট্টগ্রাম ডটকম

পরিবার ও দেশকে সুস্থ রাখতে ঘরে থাকুন, করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরিধানসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সৌজন্যেঃ দেশচিত্র ডটনেট।