চট্টগ্রামে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ৭

কলেজ বাজার এলাকায় দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ জন নিহত

আপডেটের সময়ঃ জুন ১৯, ২০২১

চট্টগ্রামে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় ৭ জন নিহত হয়েছে। নগরের কর্ণফুলী. পাহাড়তলী,খুলশী ও ইপিজেড় থানাধীন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার রাতে ও শুক্রবার এসব দূর্ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে শুক্রবার বিকেল সোয়া ৩টার দিকে কর্ণফুলীর কলেজ বাজার এলাকায় যাত্রীবাহী দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১৫ জন।

সিএমপির কর্ণফুলী থানার ওসি কর্মকর্তা দুলাল মাহমুদ জানান, চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের কলেজ বাজার এলাকায় একটি সিএনজি ফিলিং স্টেশনের সামনে বিআরটিসির বাস, লোকাল বাস ও সিএনজি অটোরিকশার ত্রিমুখী সংঘর্ষ হয়েছে। নারী, পুরুষ, শিশুসহ অন্তত ১৬জনকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তিনি জানান, একটি সিএনজি অটোরিকশাকে সাইড দিতে গেলে দ্রুতগতির বিআরটিসি বাসটি উল্টোপথে চলে আসে। এতে আরেকটি বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

অন্যদিকে নগরের পাহাড়তলী থানাধীন রানী রাসমনি ঘাট এলাকায় শুক্রবার সকালে অজ্ঞাত গাড়ির ধাক্কায় গোপাল দাশ (৪৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। গোপাল দাশ দক্ষিণ কাট্টলী এলাকার হরিলাল দাশের ছেলে।

 চমেক সূত্রে জানা গেছে, সকাল ৮টার দিকে গাড়ির ধাক্কায় আহত গোপাল দাশকে হাসপাতালে আনা হয়। জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এছাড়া বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার দিকে নগরের খুলশী থানার আখতারুজ্জামান ফ্লাইওভারে জিইসি অংশে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তামিম (২০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।  ওই ফ্লাইওভারের ইউনেস্কো সিটি সেন্টারের সামনে অংশে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত তামিম হাটহাজারী উপজেলার ধলাই ইউনিয়নের কাজিরহাট এলাকার শাহ আলমের ছেলে।

নিহতের ভগ্নিপতি শহিদুল ইসলাম বলেন, তামিম হামজারবাগের বাসায় যাচ্ছিল। ফ্লাইওভারে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আইল্যান্ডের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে তামিম গুরুতর আহত হয়। পরে পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

চমেক সূত্র জানায়, ফ্লাইওভারে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তামিম নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তার মরদেহ হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে নগরের ইপিজেড থানাধীন স্টিলমিল বাজার খালপাড়ে বাসের চাপায় রিকশারোহী নারী ও শিশুসহ একজন পথচারী নিহত হয়েছেন। তারা হলেন- আরফা বেগম (৪৫), তার ভাতিজি আয়শা আকতার মিম (৮) ও পথচারী রেজাউল করিম (২৪)। স্থানীয় জনতার সহায়তায় পুলিশ বাসচালককে আটক করেছে।

ইপিজেড থানার পরিদর্শক রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী জানান, স্টিলমিল বাজার সংলগ্ন খালপাড় থেকে বাসটি ইপিজেডের দিকে আসার সময় রিকশা চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই আরফা বেগম (৪৫), তার ভাতিজি আয়শা আকতার মিম (৮) ও পথচারী রেজাউল করিম (২৪) মারা যান। বাস ও চালককে আটক করা হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিবেদক।

পরিবার ও দেশকে সুস্থ রাখতে ঘরে থাকুন, করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরিধানসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সৌজন্যেঃ দেশচিত্র ডটনেট।