চট্টগ্রামে ধর্ষণের শিকার বিধবা নারী: ইউপি সদস্য গ্রেফতার


আপডেটের সময়ঃ সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০


চট্টগ্রামে এক বিধবা নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য মো. আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। ওই বিধবা নারী জেলার লোহাগাড়ার পদুয়া ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা।

মঙ্গলাবার (১৫ সেপ্টেম্বর ) রাতে লোহাগাড়া থানা পুলিশ নগরীর চান্দগাঁও থানার সহায়তায় চান্দগাঁও এলাকা থেকে অভিযুক্ত ওই ইউপি সদস্যকে গ্রেফতার করে।

চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান খন্দকার বলেন, মো. আনোয়ার হোসেন নামে এক আসামিকে গ্রেফতারে রিকুইজিশন দিয়েছিল লোহাগাড়া থানা। রাত ১টার দিকে তাকে আটক করা হয়েছে। লোহাগাড়া থানা পুলিশের কাছে তাকে হস্তান্তর করা হয়েছে।

জানা গেছে, পদুয়া এলাকার এক বিধবা নারীকে দীর্ঘদিন ধরে হয়রানি করে আসছিলেন পদুয়া ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. আনোয়ার হোসেন। স্বামী মারা যাওয়ার পর তার অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে হয়রানি করে আসছিলেন তিনি। ওই নারীকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে জোরপূর্বক অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করছেন বলেও অভিযোগ ছিল ইউপি সদস্য আনোয়ারের বিরুদ্ধে।

লোহাগাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রাশেদুল ইসলাম বলেন, ভুক্তভোগী ওই নারী এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে ২৬ আগস্ট লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন। রাশেদুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে ভুক্তভোগী নারী থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপর সিএমপির চান্দগাঁও থানার সহায়তায় অভিযুক্ত মো. আনোয়ার হোসেনকে আটক করা হয়।

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফোকাস চট্টগ্রাম ডটকম

পরিবার ও দেশকে সুস্থ রাখতে ঘরে থাকুন, করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরিধানসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সৌজন্যেঃ দেশচিত্র ডটনেট।