চট্টগ্রামে ডাকাতিকালে নারী খুনের মামলায় ৪ জনের ফাঁসির আদেশ


আপডেটের সময়ঃ মার্চ ৩, ২০২১


চট্টগ্রাম নগরীতে ডাকাতির সময় এক নারীকে খুনের মামলায় চার জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন একটি আদালত।

বুধবার (৩ মার্চ)  চট্টগ্রামের চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মো. শরিফুল আলম ভুঁইয়া এ রায় দিয়েছেন। দণ্ডিতরা হলেন- মো. ইয়াছিন, মনসুর, আবু তৈয়ব ও মো. ইছহাক। এদের মধ্যে ইয়াছিন ছাড়া বাকি সবাই পলাতক আছেন।মহানগরীর রৌফাবাদে ডাকাতিকালে খুনের এই মামলায় পৃথক ধারায় প্রত্যেককে যাবজ্জীবন ও ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছর করে সাজা দিয়েছেন। এর আগে ২০১৭ সালের ৫ মার্চ আসামিদের বিরুদ্ধে ডাকাতি ও খুনের পৃথক ধারায় অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। রাষ্ট্রপক্ষ মোট ১০ জন সাক্ষী আদালতে উপস্থাপন করে।

আদালত সুত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ৫ মার্চ সন্ধ্যার পর চট্টগ্রামের বায়েজিদ বোস্তামি থানার রৌফাবাদে বাংলাদেশ কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটির জনাবা ভিলার তৃতীয় তলার বাসায় পারভিন আকতার নামের এক নারীকে হত্যা করা হয়। মামলার নথিপত্রের ভিত্তিতে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি অতিরিক্ত পিপি নোমান চৌধুরী জানান, পারভিনের ছেলে নূর মোহাম্মদ সাঈদকে পড়িয়ে গৃহশিক্ষক চলে যাওয়ার সময় বাসার দরজা খোলা ছিল। এ সুযোগে চারজন বাসায় ঢুকে পারভিন ও তার ছেলেকে জিম্মি করে। সাঈদকে হত্যার ভয় দেখিয়ে আলমারির চাবি নিয়ে তিন ভরি স্বর্ণালঙ্কার, সাত হাজার টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। এসময় পারভিন চিৎকার দিলে তাকে মেঝেতে ফেলে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় পারভিনের স্বামী নুরুল আলম বাদি হয়ে মামলা করেন। ২০১৬ সালের ১৩ জুন পুলিশ অভিযোগপত্র দেয়।

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফোকাস চট্টগ্রাম ডটকম

পরিবার ও দেশকে সুস্থ রাখতে ঘরে থাকুন, করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরিধানসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সৌজন্যেঃ দেশচিত্র ডটনেট।