চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত বাড়ছেই: লকডাউনে কর্মজীবীদের ভোগান্তি

গত ২৪ঘন্টায় মারা গেছেন ৩ জন

আপডেটের সময়ঃ জুন ২৯, ২০২১

চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসে সংক্রমণ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। হাসপাতালে সংকটাপন্ন রোগী যেমন বেড়েছে, তেমনি কমছে না করোনা সংক্রমণ নিয়ে মৃত্যুও।  গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ১ হাজার ৫০৬টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩৬৮ জনের। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত ৫৮ হাজার ৩৬৮ জন। এইদিন করোনায় মারা গেছেন ৩ জন।

মঙ্গলবার সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনের এ তথ্য জানা গেছে।

এ অবস্থায় সরকার ঘোষিত ‘সীমিত লকডাউনে’র মধ্যে সরকারি-বেসরকারি অফিস ও কলকারখানা খোলা থাকায় মানুষকে জীবিকার তাগিদে ঘর থেকে বের হতে হয়েছে। আর গণপরিবহন বন্ধ থাকায় যথারীতি কর্মজীবীদের কর্মস্থলে যেতে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।

এর আগে গত সোমবার জেলা সিভিল সার্জনের কার্যালয়ের প্রতিবেদন অনুযায়ী, রোববার একদিনে চট্টগ্রামে এক হাজার ১৫১টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩২৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। নমুনা পরীক্ষা অনুযায়ী সংক্রমণের হার ২৮ দশমিক ৪১ শতাংশ। গত এক সপ্তাহেরও বেশি সময়ের মধ্যে করোনা শনাক্তের হার রোববার ছিল সর্বোচ্চ। এর আগে শনিবার ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছিল ৩০০ জনের। শনিবার নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ছিল ২২ দশমিক শূন্য পাঁচ শতাংশ, শুক্রবার তা ছিল ২৮ দশমিক শূন্য পাঁচ শতাংশ।

মঙ্গলবার সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানা গেছে, এইদিন কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাব ও চট্টগ্রামে ৯টি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা হয়। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৮৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ৫২৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে শনাক্ত হয় ১১৬ জনের। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ১৪৯টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৬ জন এবং চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ১৮২টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৭ জনের করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে। এ ছাড়া ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাব ৯৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৪ জন, শেভরণ ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ২২৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৪ জন, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ৩১টি নমুনা পরীক্ষা করে ১১ জন, জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) ৬৩টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৫ জন এবং এপিক হেলথ কেয়ার ল্যাবে ৩৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৬ জনের শরীরের করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। অন্যদিকে কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ৪৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ ছাড়া চট্টগ্রাম এন্টিজেন টেস্টে ৭১টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৭ জন। এদিন চট্টগ্রাম মেডিক্যাল সেন্টার ল্যাব এবং পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোনো নমুনা পরীক্ষা করা হয়নি।

সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ১ হাজার ৫০৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে শনাক্ত হয়েছেন ৩৬৮ জন। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নগরের ২২৬ জন এবং উপজেলার ১৪২ জন।

নিজস্ব প্রতিবেদক।

পরিবার ও দেশকে সুস্থ রাখতে ঘরে থাকুন, করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরিধানসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। সৌজন্যেঃ দেশচিত্র ডটনেট।